ফের তৃণমূলে ফিরছেন শুভ্রাংশু, নাকি সত্যি স্বেচ্ছাবসর ?

0
180
ফের তৃণমূলে ফিরছেন শুভ্রাংশু, নাকি সত্যি স্বেচ্ছাবসর ?

টিভি নিউজ টেন ডেস্ক: জল গড়াচ্ছে তো গড়াচ্ছেই। আর তার জেরে চূড়ান্ত অস্বস্তিতে রাজ্যের গেরুয়া শিবির। কার্যত পদ্ম শিবিরের একাংশ মেনেই নিচ্ছেন দলে আর একটা উইকেট পড়তে চলেছে। শাসক শিবিরের প্রত্যাবর্তন ঘটতে চলেছে বিধায়কের। অপরদিকে অন্য একটি শিবির ক্রমান্বয়ে আশ্বাস দিয়ে চলেছে যে সেরকম কিছু হবে না। কেউ দল ছাড়ছে না। তবে জল্পনা বেশ গতি পেয়েছে শুক্রবার সকালে নিজেদের কাঁচড়াপাড়ার বাড়িতে মুকুলপুত্র শুভ্রাংশু রায় সাংবাদিক বৈঠকের ডাক দেওয়ায়। অনেকেই মনে করছেন সেখানে ছোটখাটো বোমা ফাটালেও ফাটাতে পারেন এই তরুণ বিধায়ক। পাশাপাশি ইঙ্গিত মিলতে পারে তাঁর ভবিষ্যত কর্মপন্থা নিয়েও। যার অন্যতম শাসক শিবিরে যোগদান।

বৃহস্পতিবার শুভ্রাংশু নিজের ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করে যেখানে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেওয়া হয় রাজনীতি থেকে সরে গেলে কেমন হয়। তাঁর এই পোস্টই রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল ফেলে দেয়। মজার কথা মুকুল রায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করার পর থেকে তৃণমূলের একের পর এক নেতার তির্যক আক্রমণের মুখে পড়েন মুকুলপুত্র। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের পরে দিল্লি গিয়ে বিজেপির সদর দফতরে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন শুভ্রাংশু। কিন্তু খাতায় কলমে তিনি এখনও তৃণমূল বিধায়কই রয়ে গিয়েছেন। ঘটনাচক্রে গত বছরের শেষ দিক থেকে মুকুল পুত্রের বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতৃত্বের আক্রমণের সুর কার্যত তলানিতে ঠেকেছে। আর এখন আর শুভ্রাংশুর বিরুদ্ধে তৃণমূলের কোনও নেতাকে যেমন সরব হতে দেখা যায় না তেমনি শুভ্রাংশুও সেভাবে তেঁড়েফুঁড়ে তৃণমূলকে আক্রমণ করেন না। তার জেরেই বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকেই জোর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। অনেকেই মনে করছেন হয়তো আগামী মাস ৩-৪ চুপচাপ থাকবেন শুভ্রাংশু। রায় বিধানসভা নির্বাচনের দিনক্ষন ঘোষণা হলেও শাসক শিবিরের ফের যোগ দেবেন তিনি।

কিন্তু এই জল্পনাকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে রাতারাতি শুক্রবার সকালে ডাকা সাংবাদিক বৈঠক। শুক্রবার সকাল ১০টা নাগাদ নিজেদের কাঁচড়াপাড়ার বাড়িতে ওই বৈঠক ডেকেছেন শুভ্রাংশু। সেখানে তিনি কী বলবেন, তা নিয়ে জল্পনা এখন তুঙ্গে। পাশাপাশি চূড়ান্ত অস্বস্তিতে পড়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। অনেকেই মনে করছেন শাসক শিবিরে হয়তো এখুনই যোগ দেবেন না শুভ্রাংশু। সেক্ষেত্রে মুকুল রায় নিজেও পদ্ম শিবিরে আরও বড় অস্বস্তিতে পড়বেন। তবে রাজ্য বিজেপির নেতৃত্ব নিয়ে যে শুভ্রাংশু অসন্তুষ্ট তা জানিয়ে দেবেন। একান্তই পরিস্থিতির পরিবর্তন না ঘটলে হয়তো শুভ্রাংশু ফিরে যেতে বাধ্য হবেন তৃণমূলেই। কারন রাজ্য বিজেপির একটি অংশ এবার আর বীজপুর বিধানসভা থেকে শুভ্রাংশুকে টিকিট দিতে নারাজ। সে কথা শুভ্রাংশুর কানে গিয়েছে। সব মিলিয়ে বিস্ফোরণ কার্যত সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

আরও পড়ুন : ‘দুর্গাপুজো ঘরে বসে হয় নাকি ?’ : মুখ্যমন্ত্রী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here